দেশগাথা – সমর্পণ মজুমদার

 

 

ই সেই দেশ, ভূমিতে যাঁহার সকল জাতির ধূলি-

সুনিপুণভাবে মিশিয়াছে মহা মিলনের রব তুলি।

এই সেই দেশ ঐক‍্য যাঁহার আজনম মহাব্রত,

সে ব্রত পালনে মুনিঋষিগণ যুগে যুগে ক্রিয়ারত।

এই সেই দেশ ভাবনা যাঁহার জগতে পেয়েছে মান।

জড়বাদ তাঁর গৌণ এবং ধর্মে রয়েছে প্রাণ।

এই সেই দেশ সমাজে যাঁহার যুগোপযোগীর জয়-

গোঁড়া চিন্তন গুঁড়ো হয়ে গিয়ে ফুৎকারে উড়ে যায়।

এই সেই দেশ বিশ্ব যাঁহার সঙ্গীতে রয় মজে-

অমর বাদ‍্যে মহান রাগিনী শৃঙ্গে-সাগরে বাজে।

এই সেই দেশ অঙ্কে যাঁহার গণিতের নিকেতন,

মনোবিজ্ঞান, জ‍্যোতিষ হইল সজ্ঞাত-সচেতন।

এই সেই দেশ শিল্প যাঁহার আশৈশব লব্ধ।

ভাস্বর হয় ভাস্কর আর স্হাপত‍্যে হই মুগ্ধ।‍

এই সেই দেশ মানস যাঁহার কাব‍্যিক রসসিক্ত-

ধ্বনিবিজ্ঞান, ছন্দের বলে শ্রেষ্ঠচূড়াভিষিক্ত।

এই সেই দেশ স্বাস্হ্যে যাঁহার খেলিছে স্বতঃস্ফূর্তি-

আয়ুর্বেদ আর যোগের শাস্ত্রে কর্মশ্রেষ্ঠ মূর্তি।

এই সেই দেশ শোণিত যাঁহার শাণিত বীরের বীর্যে-

রূদ্রবীণায় কাঁপিয়া হৃদয় কাঁপাইল মহাতূর্যে।

এই সেই দেশ কন্ঠ যাঁহার করিল উচ্চারণ-

চরম জ্ঞানের মন্ত্রগাথায় দৈব সম্ভাষণ।

এই সেই দেশ অতীত যাঁহার পূণ‍্যকর্মে পূর্ণ।

আজি নৈতিক অধঃপতনে, দম্ভে হয়েছে চূর্ণ।

একদা যাঁহার কেতন উড়িত নৈতিক মেরুদন্ডে,

আজিকে উক্ত কেতন দুষায় স্বার্থপর আর ভন্ডে।

একদিন হায় যাঁহার মাথায় ছিল শ্রেষ্ঠোষ্ণীষা,

তাঁহার কন্ঠে তীব্র আজিকে পরানুকরণ তৃষা।

একদিন যাঁর অন্তরে ছিল পূর্ণ সতেজ প্রাণ,

সুপ্ত হৃদয়ে পরের দাপটে সহিছেন অপমান।

তবুও তো আজও বেঁচে আছে আশা, জীবিত জ্ঞানোষ্ণতা,

শিরায় শিরায় স্বপ্ন জাগায়ে নবপ্রাণ স্পন্দিতা।

যোগের বাঁধনে সেই স্পন্দনে আসিবে নিপুণ ছন্দ,

জাগিয়া উঠিবে সনাতন জ্ঞান, মুছিয়া যাইবে মন্দ।

মুক্তজ্ঞানের রূদ্ধ দুয়ার চূর্ণ হইবে যবে,

ভারতলক্ষ্মী মেলিয়া অক্ষি হাসিবেন গৌরবে ।।

_____


FavoriteLoading Add to library

Up next

গেম – সাবিহা সুলতানা...        অনেকক্ষন থেকে কলিংবেল টিপছে শাহেদ, কিন্তু ভেতর থেকে দরজা খোলার কোন লক্ষণই নেই। দরজায় কয়েকবার কান পাতে সে , নাহ, কেউ এগিয়ে আসছে বলেও মনে...
ভৌতিক না অলৌকিক সেই কুকুরটা... - প্রদীপ চট্টোপাধ্যায়   রোজই তো ফিরি আজ কেন গা ছমছম করছে? নিজেকেই প্রশ্ন করলাম। গভীর অন্ধকার পথ দিয়ে বাড়ি ফিরছি। গ্রামীণ এই এলাকাটায় বিদ্যু...
পণ্যগ্রাফি -কৌশিক প্রামাণিক বোনটি তো আমার সেদিনই কেঁদেছিল যেদিন ও প্রথম পৃথিবীর আলো দেখেছিল, লোভী চোখের দৃষ্টিগুলোতে চিন্হিত হলো সে মেয়ে তখন জন্মেই তাকে শুনত...
তেইশ বছর – গার্গী লাহিড়ী... তোমার পুরোনো চিঠিগুলো জমিয়ে রেখেছি অলস দুপরে চিলেকোঠার ঘরে ভাঙা তোরঙ্গ থেকে অতি সন্তর্পনে সেগুলো বার করি , আঘ্রান নিই পচা মাছের মতো পুরোনো স্মৃ...
স্বর্ণযুগের ছড়া – প্রথম পর্ব।... গুপ্তযুগকে সুবর্ণযুগ বলা হত ইতিহাসেতেমনি এক সোনার যুগছিল এই বাংলাদেশেসাদাকালো সেসব ছবিরঙীন তার পোস্টারলবিকার্ড আর বুকলেটেআছে সে বিপুল সম্ভারউত্তম সুচি...
কৃষ্ণবিবরের ইতিকথা... আমাদের অনেকেরই দিন শুরু হয় ঘুম থেকে ওঠার পর সূর্য প্রণাম করে। আর আমাদের এই বসুন্ধরায় সকল প্রাণের লালন পালনের মূলেই কিন্তু রয়েছে সেই সূর্যের অফুরন্ত শক...
দত্তক - গার্গী লাহিড়ী মধ্যরাতে বারান্দার কোনটিতে একলা বসে লেখিকা অনুসূয়া আজ সে বড় ক্লান্ত পোষমানা স্মৃতির পাতাগুলো বিতর্কের ঝড়ে এলোমেলো অবাধ্য এত ক্ষো...
মানুষের মিথ্যে বলার পিছনে বাস্তব মনোবিজ্ঞান... - পায়েল সেন আমাদের প্ৰতেকের, জীবনের কোথাও না কোথাও কাউকে না কাউকে মিথ্যে কথা বলেছি। একবার কিংবা একাধিক বার সেটা মনে রাখার বিষয় নয়, আসল কথাটাই হলো ‘...
ইলিশ মাছ ভাপা - মালা নাথ    "একে তো ফাগুন মাস দারুণ এ সময় লেগেছে ভীষণ চোট কী জানি কী হয়, অঙ্গে চোট পেলে সে ব্যথা সারাবার হাজার রকমের ঔষধি আছে তার, মরমে...
আমার দূর্গা – প্রসেনজিৎ মুখার্জী... অশ্বিনমাসে কাশের ফুলে দূর্গা আসে সবার ঘরে আমার দূর্গার শরীর জ্বলে বধূর বেশে স্বামীর ঘরে জ্বালিয়ে আগুন তার গায়ে তোমরা মাতো দূর্গা নিয়ে আমার দুর্গ...
ADMIN

Author: ADMIN

Comments

Please Login to comment