শেষ ট্রেনের যাত্রী – পরিতোষ মাহাতো

শেষ ট্রেন ধরার লক্ষ্যে দৌড়াচ্ছে লক্ষ লক্ষ অ্যাথলেটিক্স
বাড়ি ফিরতে হবে ,
বাড়ি ঠিক নয়, আশ্রয়
রাত্রিটুকুর জন্য
আমরা যাকে বাসস্থান বলি
সেটা ঠিকানা,
অফিসই তাদের বাসস্থান
পরিবারের সকলের দায়িত্ব কাঁধে নিয়ে
এরা ছুটে চলে প্রতিদিন
রাতের শেষ ট্রেন, গ্যারেজ দাদু, ভাঁড়ের চা তাদের
চেনা গল্প
কিন্তু, বাড়িতে
তিন বছরের ছোট্ট শিশুটি চেনে না তার বাবাকে।
বাড়ি ফেরে তার ঘুমানোর পর
বেরিয়ে যায় ঘুম ভাঙার আগেই,
সময়ের সমুদ্রে বাস করেও
এক মুহূর্ত সময় প্রিয়জনের জন্য দিতে পারে না তারা।

জন্ম হয় আরও এক অ্যাথলেটিক্স-এর
অলিম্পিকে না দৌড়ালেও
এরা প্রতিনিয়ত দৌড়ায় জীবনের দৌড়ে…

____


ADMIN

Author: ADMIN

Comments

Please Login to comment