চিকেন কোরমা বানান সহজেই

–  অনামিকা দাস(মিষ্টি তারা)

  “মরা বাঙালী”,ব্যাস কথাটি এইটুকু বলেই আমি থেমে যেতে পারতাম কিন্তু শুধু এইটুকু বললে বাঙালীর আসল পরিচয় খানিকটা গোপনই থেকে যায়,তাই বাঙালী নামটির আগে “ভোজনরসিক” শব্দটি জুড়ে না দিলে কেমন যেন বৃত্তটা অসম্পূর্ণই থেকে যায়,তাই আমাদের একমাত্র পরিচয় হল “আমরা ভোজনরসিক বাঙালী,” তবে একথাও সত্য যে আমরা ভোজনরসিকের পাশাপাশি রন্ধনশিল্পেও জুড়ি মেলা ভার,সবমিলিয়ে আমরা বাঙালীরা যেন এক শিল্পের আঁতুড়ঘর,এক্ষেত্রে একটু বলে রাখা ভালো আমরা মাছেভাতে বাঙালী হলেও বর্তমানে আরও অন্যান্য রান্নার পদ প্রস্তুতে আমরা বাঙালীরা অনেকটাই এগিয়ে,তাই আমিও সামান্য চেষ্টা করলাম বাঙালীর এই পরম্পরাকে অক্ষুণ্ন রেখে আপনাদের সকলের কাছে জিভে জল আনা একটি রেসিপি উপস্থাপনা করতে,

উপকরণ : –

             ১)        মাংস(৫০০ গ্রাম চিকেনের লেগপিস),

              ২)       ফাটানো টকদই(১৫০গ্রাম মতন),

              ৩)       আদাবাটা(২ চামচ),

              ৪)        লঙ্কার গুঁড়ো(১ চামচ),

              ৫)       হলুদের গুঁড়ো(১ চামচ),

              ৬)      গরম মশলা গুঁড়ো(১ চামচ),

               ৭)      ধনে গুঁড়ো(১ চামচ),

               ৮)      সাদা তেল,

               ৯)     পেঁয়াজ কুচি কুচি করে কাটা(৩ টে মিডিয়াম সাইজের পিঁয়াজ)

              ১০)     গোটা কাজুবাদাম(৮ থেকে ৯টি ),

              ১১)     আমান্ত(৫টি বা ৬টি),

              ১২)     তেজপাতা,

               ১৩)     গোটা গরম মশলা(১টা করে),

               ১৪)    নুন

পদ্ধতি : –

মাংসগুলোকে প্রথমে দই,আদাবাটা,নুন লঙ্কার গুঁড়ো,গরম মশলা গুঁড়ো দিয়ে ভালো করে মাখিয়ে ৩০ মিনিট রেখে দিতে হবে ।

তারপর কড়াইয়ে সাদা তেল বা ঘি দিয়ে এলাচ,কুচি কুচি করে পেঁয়াজ কাটা,গোটা কাজু,গোটা আমান্ত দিয়ে কড়াইয়ে ভালো করে নাড়াচাড়া করতে হবে,পেঁয়াজ লালচে হয়ে যাওয়ার পর নামিয়ে নিতে হবে,তারপর সেটি মিক্সারে পিষে নিতে হবে,তারপর অল্প তেল কড়াইয়ে দিয়ে গরম করে প্রথমে তেজপাতা তারপর গোটা গরম মশলা ফোড়ন দিয়ে মাংসগুলোকে কড়াইয়ে ভালো করে ভেজে নিয়ে মিক্সারে তৈরি গ্রেবীটাকে মাংসের উপর দিয়ে দিতে হবে,তারপর পরিমাণমত নুন,গরম মশলা গুঁড়ো ,ধনে গুঁড়ো এবং হালকা জল দিয়ে ফোটালেই তৈরী হয়ে যাবে জিভে জল আনা সুস্বাদু রেসিপি চিকেন কোরমা ।


FavoriteLoading Add to library
Up next
দেশগাথা – সমর্পণ মজুমদার...     এই সেই দেশ, ভূমিতে যাঁহার সকল জাতির ধূলি- সুনিপুণভাবে মিশিয়াছে মহা মিলনের রব তুলি। এই সেই দেশ ঐক‍্য যাঁহার আজনম মহাব্রত, সে ব্রত...
বাঙালীর দূর্গাপুজো – দীপ্তি মৈত্র... দুগ্গা পূজা ভারী মজা পড়াশুনা নাই ঘুরে ঘুরে ঠাকুর দেখা দিন-রাত্তির ভাই। সংগে চলে “খানা-পিনা” বাহারে বাহার, মাতিয়ে রাখে কটা দিন কি মজাদার।    ছোট্ট ...
একটি গোলাপ গাছের প্রেম কথা – বৈশাখী চক্রবর্...   একটা গোলাপ চারা পুঁতেছিল কেউ বাগানে, বর্ষার জল পেয়ে পৌঁছলো সে শৈশব থেকে যৌবনে।   প্রথম কুঁড়ি এলো গাছে,   লাল টকটকে রঙ  যার, এক ভ্রমর এলো গ...
পুরুষ – তুষার চক্রবর্তী...  দুপুর তিনটে বাজে। কাকলির আজ আর ঘুম আসছে না। বার বার ঘড়ির দিকে দেখছে। সাড়ে পাঁচটা বাজলে, কাকলিকে যেতে হবে অয়নদের বাড়িতে। অয়নের বাবার সাথে তাকে দেখা কর...
বেইমান- তমালী চক্রবর্ত্তী... সব্জিভর্তি থলে নিয়ে অনেক কষ্ট করে বাড়ির দরজার তালা খুলল ফাতিমা বেগম। আজকাল আর আগের মতো দৌড়ঝাঁপ পোষায় না। ৬০ তম বসন্ত কিছুদিন আগেই পেরিয়েছে, হাঁপ ধরা স...
সম্পর্ক – বিভূতি ভূষন বিশ্বাস... আমি তখন ক্লাস সিক্সে পড়ি ।  ১৯৮০ সালের এক ঘন বর্ষার দিন প্রায় এক সপ্তাহ ধরে রিমঝিম করে অনবরত বৃষ্টি পড়েই চলেছে থামার কোন নাম গন্ধ নেই । গ্রামের রাস্তা...
সারমেয় বৌদি - অর্পিতা সরকার  সদ্য বিবাহিত এমন রূপসী বৌকে ফেলে যে কেউ বাইরে কাজে যেতে পারে, এই হেন গুরুতর চিন্তা ছোট্ট মফস্বলটার তস্য ছোটো পাড়ার অনেক ছেলেবুড়োর রা...
সক্রিয়তা, বিবেকানন্দের আলোকে... - সমর্পণ মজুমদার    "শক্তিই জীবন দূর্বলতাই মৃত্যু" -স্বামী বিবেকানন্দের এই বাণীতে জগৎ খুঁজে পাওয়া যায়। শক্তিই মানুষের বেঁচে থাকার প্রধান উপাদান। স্...
ফ্যাশন শো – অন্বয় গুপ্ত... ফ্যাশন শো। এরই নাম গভীর রাত ! শাটার টেনে দোকানি ছুটে গেল র‍্যাম্পের শেষ মাথায়-স্টেশন নাম ! ঘামের মেকআপ তোলা বাকি। ভ্যানওলা,লুঙি গেঞ্জির কস্টিউমে ...
মিথ আর প্রশ্ন - মৌমিতা মারিক (রাই)   আমি কোনোদিন ফরসা হতে চাইনি ফেয়ার অ্যান্ড লাভলীর অ্যাড মেখে ঘুরতে চাইনি যতবার আমায় কালো বলেছো জিজ্ঞেস করেছি " বিদেশী...
Admin navoratna

Author: Admin navoratna

Happy to write

Comments

Please Login to comment