নষ্ট মেয়ে -গার্গী লাহিড়ী

ষ্ট মেয়ে আমি

অবাক হচ্ছো ? নির্লজ্জ্ব কথাটা

কেমন অনায়াসে বললাম?

আমি লাজ বিক্রি করি ,

দেহের বেসাতি আমার

পথের ধুলায় পড়ে থাকে

লাল ফুল ছাপ বিছানায়

দেনা পাওয়ার হিসেব মেলাই |

কামতাড়িত নষ্ট পুরুষ

ভোগ লালসা মেটাতে আসে

স্বল্প পয়সার বিনিময়ে |

নগ্ন শরীরে হামলে পড়ে

শারীরিক তৃপ্তি কেনে -,

সামাজিক পরিচয় তাদের অন্য

দোকানদার কে সবাই জানে |

খদ্দের কে কজন চেনে ?

নষ্ট পুরুষের দল লালসা পোষে সংগোপনে ,

দেনা পাওনা খিস্তি খেউর সব অন্ধকার কোনে |

ধর্ষণ আর সহবাসের তফাৎ আমি বুঝিনা ,

সুখের আবেশে রতিক্রিয়া ?

অর্থ আমার অজানা |

শুধু বুঝি যন্ত্রণা কষ্ট ভয়

সব সহ্য করতে হয় ,

নষ্ট পুরুষ আমার শরীর নিয়ে খেলে

মুখোশ ছিঁড়ে চামচিকে রা ডানা মেলে |

আমি দেখেছি তীক্ষ্ণ নখ , লালাঝরা স্বদন্ত

রংমাখা মুখ গন্ধভরা দেহের জ্যান্ত ময়নাতদন্ত ,

আমার গায়ে আদিম অরণ্যের গন্ধ

চোখের কোনের জলকপাট তাই বন্ধ |

মাতৃত্বের স্বাদ আমি পেতে চাই না

তাজা প্রাণ কে বিছানায় ঠেলে দিতে মন মানে না ,

স্বামী সোহাগিনী বধূর শরীর ছিঁড়ে

নষ্ট পুরুষ হারিয়ে যায় সমাজের ভিড়ে |

বাবার আদরের কিশোরী কন্যা

পৌরুষের আঘাতে অব্যক্ত কান্না ,

ছোট্ট শিশুর অঙ্গ প্রত্যঙ্গ

নিজেদের কে চেনেই না |

যোনির অভিশাপ আমৃত্যু

এখনো যেটা সে বোঝেই না ,

বয়স তোমার কাছে সংখ্যা মাত্র

৩ হোক বা ৭০ কি এসে যায়?

যোনি প্রদেশই তোমার বিচরণ ক্ষেত্র |

সুসভ্য জাতির শিরোপা নেই তোমার মাথায়

সুশীল সমাজ তোমার দিকে

কুটিল চোখে তাকায় ,

এস তুমি আমার কুঞ্জে প্রতিনিয়ত

নগ্ন শরীরে ইচ্ছেমত বানিয়ে যাও ক্ষত |

নষ্ট পুরুষ তুমি ধর্ষক সব জায়গায়

বলপূর্বক হোক বা পয়সার বিনিময় ||

_____


FavoriteLoading Add to library
Up next
টান – সুস্মিতা দত্তরায়... নাম ছিল তার নেপাল মাহাতো। আমরা ডাকতাম 'নেপুদা' বলে। হয়তো কখনও কোনো উঁচু ক্লাসের দিদি আদর করে এই নামটা দিয়েছিল, তারপর থেকে সেই নামটাই রয়ে গেছে। সে যাই ...
আলতুফালতু   ছন্দ নিয়ে ধন্দ থাকলে মন্দ বলে লোকে,  কেউ কেউ নিজেই লেখে কেউ বা স্রেফ টোকে. জমলে শুধু ক্ষীর কেনো বরফও ও তো জমে, জমজমাটি দৃশ্য দেখলে চোখের নজর কমে. ঠো...
বিরল বিবাহ -বিভূতি ভূষন বিশ্বাস... হিন্দু সমাজে আট রকম বিবাহের কথা বলা আছে তার মধ্যে চার রকমই দেখা যায় তবে বিখ্যাত হলো দুই রকম ১) দেখা শুনা করে বিয়ে । ২) প্রেম করে বিয়ে । আচ্ছা সব বুঝল...
FAULTS IN OUR STARS – মধুর্পণা বৃষ্টি ঘোষ... এক মরা জীবকে ভালবেসেছ এক পক্ষকাল; হৃদযন্ত্রকে হৃদয় করেছে স্নেহের ওম। পাথরগুঁড়ো জড়ো করে নরম কাদায় আলতো দু'টো আঙুলে নতুন আকার; মাঝ ব্রিজের মা...
স্বপ্নশিশু – সুরজিৎ সী... আজও তোমাকে দেখি রক্তলেখা- প্রাচীরে প্রাচীরে মধ্যবিত্তের দেওয়ালে ইলেক্ট্রিক খুঁটিতে চায়ের দোকানে দৈনিক আনন্দবাজারের পাতায় পাতায়। গাছের বাকলে, শ...
অভিমান- শ্বেতা আইচ   আজ একটু তাড়াতাড়ি বাড়ি ফিরল অভীক। তাড়াতাড়ি মানে রাত ১০টা আর কি। শ্রীময়ী কে সারপ্রাইজ দেবে। অনেকদিন পর…… বছর খানেক হতে চলল অভীক আর শ্রীময...
অমাবস্যার রাত – প্রদীপ চট্টোপাধ্যায়...      আমার দাদু বরুণদেব মুখোপাধ্যয়ের জীবনে এমন ঘটনা লক্ষ্য করেছিলেন মৃত্যু পাঁচ বছর আগে থেকেই। অমাবস্যার রাতেই এই ঘটনা একমাত্র ঘটতো। দাদুকে বহু ডাক্তার...
কাল-পুরুষ ও পৃথিবী – রথীকান্ত সামন্ত... পূর্ণপৃথক দৃষ্টিকোণ, আর দেহ ছাড়ার তাড়ায় চোখের আয়নায় মুখ দেখতে ভুলে গেছি আমি যেটুকু আঁধার জোনাকি-আলোয় হারায় কাঁটা জেনেও সে পথেরই হই অনুগামী। বিরহ আ...
ওই লোকটা – গার্গী লাহিড়ী... আবার এসেছে ওই লোকটা দু হাত মুষ্টিবদ্ধ , কাঁধে বিশাল এক ঝোলা মুঠোর মাঝে কি আছে বোঝা যায় না দুর্বোধ্য ভাষায় হেঁকে যায় গলি থেকে গলি লোকটা কি ফেরি ক...
সংসার জীবন – প্রদীপ চট্টোপাধ্যায়... ধ্যাৎ তেরিকা, এটা একটা জীবন হল! দিনরাত গাধার মতো খাটছি। কার জন্য খাটছি জানি না। কেউ কারোর নয়। মেয়ের বিয়ে হয়ে গেলে পর হয়ে যাবে। আদর করে মানুষ করলাম। গা...
ADMIN

Author: ADMIN

Comments

Please Login to comment