বেগুনের বিরিয়ানী

– অনামিকা দাস

 

আপনাকে যদি প্রশ্ন করা হয় যে আপনার “ক্রাশ” এর নামগুলি উল্ল্যেখ করতে,নিঃসন্দেহেই আপনি সেই তালিকার মধ্যে বিরিয়ানীর নামটাই সর্বপ্রথম রাখবেন,বিরিয়ানী কার না ভালো লাগে,বন্ধুবান্ধবদের সাথে ঘোরার ক্ষেত্রেই হোক বা প্রিয় মানুষটির মনে চিরতরে নিজের জায়গাটা পাকা করাই হোক বিরিয়ানী এসকলের মেলবন্ধন ঘটাতে এক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে । তবে এমন অনেক মানুষজন রয়েছেন যাঁরা মাছ,মাংস বা ডিম গ্রহণে অতটা স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন না এর ফলে তাঁদের কাছে বিরিয়ানীর সুস্বাদু স্বর্গসুখটুকু থেকে আজীবন বঞ্চিতই  থাকতে হয়,তবে আমার বিশ্বাস শুধু সেইসকল ব্যক্তিবর্গই নয়,যাঁরা যাঁরা বিরিয়ানীর সুধাসম স্বাদের সাথে পরিচিত হয়েছেন তাঁদের ক্ষেত্রেও আমার এই রান্না “বেগুনের বিরিয়ানী” এক নতুন দিক খুলতে সচেষ্ট হবে,তাই এবার একটু জেনে নেওয়া যাক “বেগুনের বিরিয়ানী” রান্নার খুঁটিনাটিটুকু –

উপকরণ :-

১) ছোট ছোট বোঁটাসমেত বেগুন(৪টি)

২) টকদই(১০০ গ্রাম)

৩) আদা বাটা(১ চামচ)

৪) রসুন বাটা(১ চামচ)

৫) কাঁচালঙ্কা বাটা(সামান্য)

৬) হলুদ গুঁড়ো(১ চামচ)

 ৭) শুকানোলঙ্কা গুঁড়ো(আধা চামচ)

 ৮) গরমমশলা গুঁড়ো(১ চামচ)

 ৯) ধনে গুঁড়ো(১ চামচ)

 ১০) নারকেল বাটা (২ চামচ)

 ১১) কাজুবাদাম গুঁড়ো(১ চামচ)

 ১২) ধনে পাতা(সামান্য)

 ১৩) পুদিনা পাতা(সামান্য)

  ১৪) তেজ পাতা(২ টো)

  ১৫) গোটা গরম মশলা(কয়েকটা)

  ১৬) নুন(পরিমাণমত)

  ১৭) বাসমতী চাল(৫০০ গ্রাম)

  ১৮) ঘি(৪ চামচ)

  ১৯) সাদাতেল(৩ চামচ)

পদ্ধতি :- প্রথমেই ছোট ছোট বোঁটাসমেত বেগুনগুলির মুখের দিকটা চারভাগ করে চিরে রাখতে হবে,এরপর ওই বেগুনের মধ্যেই টকদই,আদা,রসুনবাটা,কাঁচালঙ্কা বাটা,হলুদ গুঁড়ো,শুকানো লঙ্কাগুঁড়ো , গরম মশলা গুঁড়ো,ধনে গুঁড়ো দিয়ে ভালো করে মাখিয়ে সেটি পনেরো মিনিট রেখে দিতে হবে,এরপর তেল গরম করে তাতে তেজপাতা,গোটা গরম মশলা,ফোঁড়ন দিয়ে মশলা মাখানো বেগুনগুলো(গ্রেবী) দিয়ে দিতে হবে তারপর কিছুক্ষণ নাড়াচাড়া করে নারকেল বাটা ও কাজুবাদাম গুঁড়ো দিয়ে সেটিকে ভালো করে ফুটিয়ে নিতে হবে,কিছুক্ষণ ফোটানো হয়ে গেলে ধনে পাতা কুচি,পুদিনা পাতা কুচি দিয়ে একটু ফুটিয়ে বন্ধ করে দিতে হবে ।

            “বিরিয়ানীর চাল” অন্যদিকে বাসমতী চাল কিছুক্ষণ ভিজিয়ে রেখে হাঁড়িতে জলের মধ্যেই গোটা গরম মশলা,তেজপাতা,ও সাদাতেল দিয়ে কিছুক্ষণ ফুটিয়ে নিতে হবে, এরপর ফুটন্ত জলের মধ্যেই ভিজিয়ে রাখা চালগুলো দিন এরপর চাল ভাতে পরিণত হলে একটি পাত্রে কিছুটা ভাত তুলে রাখুন,তারপর বেগুনের কারীটা ভাতের মধ্যে দিয়ে কয়েকমিনিট নাড়াচাড়া করে তুলে রাখা ভাতটুকুও তার মধ্যে দিয়ে হালকা নেড়ে নিন এরপর তার মধ্যে ঘি দিয়ে কিছুক্ষণ ঢেকে রাখলেই তৈরী হয়ে যাবে গরম গরম বেগুনের বিরিয়ানী ।

                                                                                    (সমাপ্ত)


ADMIN

Author: ADMIN

Comments

Please Login to comment