শরীরকে সুস্থ রাখতে চ্যবনপ্রাশের ভূমিকা – অঙ্কুর কৃষ্ণ চৌধুরী

এ কথা আজ সর্বজনবিদিত যে আয়ুর্বেদ চিকিৎসা পদ্ধতির উৎস হল এই ভারতবর্ষ। এই চিকিৎসা পদ্ধতি বর্তমানে বেশ জনপ্রিয়তা লাভ করেছে, শুধু ভারতেই নয় অন্যান্য দেশেও আয়ুর্বেদের কদর ক্রমবর্ধমান। এই চিকিৎসা পদ্ধতিতে স্বাস্থ্যকর জীবনযাপনের উপর গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে, যাতে শরীরে রোগ বাসা বাঁধতে না পারে। এই  আয়ুর্বেদের এক দান চ্যবনপ্রাশ। মহাভারত, পুরানগুলির মতো বিভিন্ন প্রাচীন গ্রন্থে চ্যবনপ্রাশের উল্লেখ পাওয়া যায়। বলা হয় চ্যবন নামের এক ঋষি চ্যবনপ্রাশের উদ্ভাবক, তবে ঐতিহাসিকভাবে এর প্রথম উল্লেখ মেলে চরক সংহিতায় যা প্রাচীন ভারতীয় চিকিৎসা শাস্ত্রের এক উল্লেখযোগ্য গ্রন্থ।

প্রাচীন ভারতে এই পথ্যের উদ্ভব ঘটলেও বর্তমানেও এটি পাওয়া যায়। প্রশ্ন ওঠা স্বাভাবিক যে চ্যবনপ্রাশ সেবন করলে কি কি উপকারিতা পাওয়া যায়। এর উত্তরে বলা যায়
প্রথমত, চ্যবনপ্রাশ সর্দি এবং কফ থেকে শরীরকে রক্ষা করে।
দ্বিতীয়ত, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। তৃতীয়ত, কর্মক্ষমতা বাড়ায়।
চতুর্থ, অকালপক্কতা রোধ করে, এছাড়াও এর আরো নানান উপকারিতা রয়েছে।

চ্যবনপ্রাশ নিয়মিত সেবন করা যায়। এটি শুধু বা গরম জল বা গরম দুধের সাথে সেবন করা যায়। দিনে দুবার গ্রহণ করতে হয় এক চা চামচ বা আধা চা চামচ করে, তবে এক্ষেত্রে মনে রাখা দরকার অতিরিক্ত চ্যবনপ্রাশ গ্রহণ করা শরীরের পক্ষে ক্ষতিকর এবং অনেকে মনে করেন শিশুদের চ্যবনপ্রাশ খাওয়ানো উচিত নয়। তবে প্রাপ্তবয়স্কদের জন্য এটি খুবই উপকারী।

____

 


FavoriteLoading Add to library
Up next
একটি বিয়ের গপ্প – অভিনব বসু... নায়িকার গল্প দিয়ে শুরু করি। কোলকাতারই মেয়ে, এলাহাবাদের এক ছেলের সাথে বিয়ে ঠিক হয়েছে, ছেলে না বলে লোক বলাই ভালো; বছর ৩৭-৩৮ বয়স, তায় দোজবর। যদিও মেয়ের স...
অপ্রত্যাশিত প্রত্যাখ্যান – তুষার চক্রবর্তী...  রাত একটা বাজে। আজ রাজীব কিছুতেই ঘুমোতে পারছে না। ঘুরে ফিরে তার চোখের সামনে ভেসে উঠছে ঋতুপর্ণা বসুর মুখটা আর কানে বাজছে তার কথা গুলো। রাজীব বুঝতে পারছ...
আডোম শুমারী – সৌম্য ভৌমিক... কত বডি আসে দিনের অবকাশে জ্বালা করে ওঠে চোখটা , আদম শুমারী ঘরেতে কুমারী বিড়ি ধরিয়েছে লোকটা | একদিন রাতে প্রেমিকের হাতে খুন হলো যে যুবতী , লোকট...
লাল গাড়ির রহস্য – অরুণাভ দত্ত... ফটোগ্রাফি বিট্টুর প্যাশন | সুযোগ পেলেই সে ক্যামেরা নিয়ে এদিক ওদিক বেরিয়ে পরে  | আজ রাতের খাওয়া শেষ হওয়ার পরেই সে তার নতুন কেনা ডিএসএলআর টা নিয়ে ছাতে চ...
শিব শম্ভু ত্রিপুরারি – শুভদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়... আমি দক্ষিণ কলকাতার ছেলে | তাই প্রতিবার যাওয়া হয় না দক্ষিণ কলকাতার পুজোয় | কিন্তু অনেকবারই গেছি ছোট থেকে | বাগবাজারের সাবেক ঠাকুর দেখার আকর্ষণ তো থাকেই...
টান – সুস্মিতা দত্তরায়... নাম ছিল তার নেপাল মাহাতো। আমরা ডাকতাম 'নেপুদা' বলে। হয়তো কখনও কোনো উঁচু ক্লাসের দিদি আদর করে এই নামটা দিয়েছিল, তারপর থেকে সেই নামটাই রয়ে গেছে। সে যাই ...
আষাঢ়ে ভূত – শাশ্বতী সেনগুপ্ত...  আকাশ এখন অনেক বদলে গেছে। বেশি সময়-টময় নেয় না আর। প্রথমেই দুহাতে এক রাশ কালো মেঘ টেনে আনে। তারপর নিজের বুকটাকে ঘন কালো মেঘে ছেয়ে দেয়। ঝটাঝট কয়েকটা ব...
নিজের সঙ্গে দেখা - দেবাশিস ভট্টাচার্য   আজ বিয়ের পঁচিশ বছর সম্পূর্ণ হলো।আমি অনিন্দিতা বসু।  ব্যাংক এর ডেপুটি ম্যানেজার সায়ক বসুর স্ত্রী। নবনীতা বসুর মা। এই এখ...
ফিরে পাওয়া - গার্গী লাহিড়ী    মা তুমি এসেছ ? আর কখনো আমাকে ছেড়ে চলে যাবে না তো ? আমি তোমাকে আর ছাড়বই না। ঘুমের মধ্যে বিড়বিড় করে কানাই। চোখের কোন বেয়ে জল...
দেশগাথা – সমর্পণ মজুমদার...     এই সেই দেশ, ভূমিতে যাঁহার সকল জাতির ধূলি- সুনিপুণভাবে মিশিয়াছে মহা মিলনের রব তুলি। এই সেই দেশ ঐক‍্য যাঁহার আজনম মহাব্রত, সে ব্রত...
ADMIN

Author: ADMIN

Comments

Please Login to comment