হাঁটি হাটি পা পা – সৌম্য ভৌমিক

বাহ ডি.পি. টা তো বেশ চমৎকার. মেয়েটি বেশ ইয়ে তো!

গোবরগণেশ হাটি। বয়স ৬০। একমাস হলো রিটায়ার করেছেন। যদিও ফেসবুকে নামটা সুমন চাটুজ্জে নামে সেট করে দিয়েছিল কলিগ সুনীল। বলেছিলো, গনেশদা আপনার আসল নামটা দিলে যত ডাইনোসরের যুগের লোকেরা ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পাঠাবে। আর নিজের এই ছবিটাও দেবেন না। ৫টা টিকে থাকা দাঁতের এই ছবি তো খানাখন্দে ভরা রাস্তার থেকেও খারাপ। আপনার এই ছবি দিলে কোনো মেয়ে ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পাঠাবে না। একটা যৌবনের ছবি দিন, ফটোশপে হাঙ্ক বানিয়ে দিচ্ছি।

ছেলে অ্যান্ড্রয়েড সেটটা দুমাস হলো গিফ্ট করেছে। রিটায়ার করার পর সারাদিন ফেসবুকেই মজে আছেন গোবরগণেশ হাটি ওরফে সুমন চাটুজ্জে।

আজ সকালে ঝিনুক ব্যানার্জী নামে একটি মেয়ে ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পাঠিয়েছে। আহা কি ডি.পি. যেনো মাখন।

অ্যাকসেপ্ট করেই ম্যাসেঞ্জারে ওয়েভ করলেন গোবরবাবু। সঙ্গে সঙ্গে উত্তর এলো, হ্যালো। আড়চোখে রান্নাঘরে গিন্নী কি করছে তাকিয়ে সোজাসুজি তুমি করেই গোবরবাবু লিখলেন, তোমার ডি.পি. টা খুব মিষ্টি। তুমিও খুব মিষ্টি। উত্তর এলো, ধ্যাত্ কি যে বলো! কথা চলতে থাকল। পরেরদিন সুনীল গাঙ্গুলীর একটা প্রেমের কবিতা ঝেপে গোবরবাবু নিজের বলে চালিয়ে দিলেন। ঝিনুক পটে পাতকুয়ো।

ইদানিং ঘুমোতে যাওয়ার আগে, ঘুম থেকে উঠে গোবরবাবুর একটাই কাজ, গুগুলে প্রেমের কবিতা খুঁজে বার করা।

দিন যায় মাস যায়, প্রেমরসে ডুবুডুবু ঝিনুক দেখা করতে চাইল। সময় ঠিক হলো, জায়গা ঠিক হলো।

তারপর! তারপর আর কি নির্দিষ্ট জায়গায় নির্দিষ্ট দিনে গিয়ে সুমন চাটুজ্জে আর ঝিনুক ব্যানার্জী দুজন দুজনকে দেখে একটাই এক্সপ্রেশন দিলেন, তুমি!!!!

ছিঃ ছিঃ বুড়ো মিনসে, এই বয়সে ভীমরতি! নোলা সক্ সক্ করে না মেয়ে দেখলে? ঝিনুক ব্যানার্জী ওরফে ফুলকুমারী হাটি মানে গোবরগণেশ হাটির একমাত্র বউ বলে উঠলেন।

সব শুনে সুমন চাটুজ্জে ওরফে গোবরগণেশ হাটির মুখ দিয়ে বাক্য সরলো না। অবাক থেকে নির্বাক থেকে হতবাক হয়ে গেলেন।

____


FavoriteLoading Add to library

Up next

আমি তোমায় ভালোবাসি – সুব্রত কুমার ঘোষ... কথাটা তোমায় বলবো ভেবেছিলাম তবুও আর বলা হয়ে ওঠেনি বক বক করা অজস্র শব্দ প্রলাপ হয়ে আছে তারা আর কথা হয়ে ওঠেনি। যে নদী সমুদ্র পায় না থেমে যায় মাঝপথে ...
ল্যাম্প – অর্পণ সামন্ত... -আরেহ্,ডাক্তারবাবু যে! পিছনে ফিরে তাকালেন ডক্টর মহেন্দ্রলাল সরকার।সন্ধ্যার সামান্য অন্ধকার কিন্তু এই গলিটাতে নিকষ কালো অন্ধকার।বয়েস বাড়ছে,চোখের তীব্র...
কি যাদু মা ডাকতে - অদিতি ঘোষ      প্লীজ, স্টপ ইট্। এই ধানাই পানাই ভাল লাগেনা আমার। প্রত‍্যেকদিন সেই একই আলোচনা। রাগে ফুঁসতে ফুঁসতে কথাকটা উগলে দিয়ে,পার্শটা...
চটপটি করোলা - রুবি ঘোষ   করোলার নাম শুনলে আট থেকে আশি সকলেরই মুখ বেজার,কিন্তু শরীর সুস্থ রাখতে অনেকক্ষেত্রেই করোলাকে ভাতের পাতে রাখতেই হয় | বড়োরা গুনাগুন...
দত্তক – সায়ন্তনী ধর চক্রবর্তী... ।।১।। এতদিনের প্রচেষ্টায় আজ ফাইনালি C.F.O. হতে পারলো সুদিপ্ত, এই পোস্টটা পাওয়ার জন্য প্রচুর খেটেছিল ও। খবরটা পেয়েই অফিস থেকে রেডি হয়ে বেরিয়ে পড়ল দী...
পণ্যগ্রাফি -কৌশিক প্রামাণিক বোনটি তো আমার সেদিনই কেঁদেছিল যেদিন ও প্রথম পৃথিবীর আলো দেখেছিল, লোভী চোখের দৃষ্টিগুলোতে চিন্হিত হলো সে মেয়ে তখন জন্মেই তাকে শুনত...
আলোর উৎসব – গার্গী লাহিড়ী... বাঙালির প্রিয় শারদোৎসব হয়ে গেল শেষ রয়ে গেছে শুধু শুভেচ্ছা বিনিময়ের রেশ , আসন্ন দীপাবলি ঘরে ঘরে রঙিন লাইট মাটির প্রদীপ পলকা ভারি করতে পারেনা ফাইট | ...
কিপটে ভূতের গল্প – শাশ্বতী সেনগুপ্ত...       নাদেশ্বর বাঁড়ুজ্যে মরে গেলেন। ভূত হয়ে ভূত জগতে পর্দাপণ মাত্রই শুনতে পেলেন তাকে নিয়ে ফিসফিসানি আরম্ভ হয়েছে। তিনি হাওয়ায় কান পাততেই কথা স্পষ্ট হল,...
আলতুফালতু   ছন্দ নিয়ে ধন্দ থাকলে মন্দ বলে লোকে,  কেউ কেউ নিজেই লেখে কেউ বা স্রেফ টোকে. জমলে শুধু ক্ষীর কেনো বরফও ও তো জমে, জমজমাটি দৃশ্য দেখলে চোখের নজর কমে. ঠো...
প্রশ্ন – সৌভিক মল্লিক... আজও ফাটা মাটির চোখে জল, শূন্য মন,রিক্ত বুক; বুকে ভরা যৌবন। শরীরে জমাট রক্ত, মাটি কামড়ে বাঁচার চেষ্টা, পাঁচ ঘন্টার জীবন-মরন যুদ্ধে আজ জয়ী মরন, ...
ADMIN

Author: ADMIN

Comments

Please Login to comment