Vinci Da Movie Review

ভিঞ্চিদা
পরিচালক – সৃজিৎ মুখোপাধ্যায়

       সৃজিৎ মুখোপাধ্যায় যে থ্রিলার ছবি তৈরী করতে সিদ্ধহস্ত তা তিনি আবার প্রমাণ করলেন `ভিঞ্চিদা’ বানিয়ে। এর আগে তাঁর `বাইশে শ্রাবণ’ এবং `চতুষ্কোণ’ সমালোচক ও সাধারণ মানুষ উভয়েরই প্রশংসা পেয়েছিল। `ভিঞ্চিদা’ ছবির গল্প আবর্তিত হয়েছে মূলত দু’টি চরিত্রকে কেন্দ্র করে – আদি বোস ও ভিঞ্চিদা।
         আদি বোস (ঋত্বিক চক্রবর্তী) চরিত্রটি বেশ জটিল। ছোট বয়স থেকেই তার আইনের দিকে ঝোঁক, ইচ্ছা ক্রিমিনাল লইয়ার হবার। কিন্তু পারিবারিক অশান্তির জেরে সে নিজের বাবাকে খুন করে জেলে যায়। জেল থেকে বেরিয়ে সে হয়ে ওঠে সিরিয়াল কিলার ( তার নিজের মতে সিরিয়াল লইয়ার)। একসময় সে তিন জন মানুষকে নিজের শিকার হিসেবে চিহ্নিত করে, এবং তার খুনের জন্য প্ল্যানমাফিক দরকার হয় এক মেক-আপ আর্টিস্টের। আর এই আর্টিস্ট হিসেবে সে ব্যবহার করে ভিঞ্চিদাকে(রুদ্রনীল ঘোষ)।
        ভিঞ্চিদা একজন মেক-আপ আর্টিস্ট, যার আর্টের মূল্য টলিউড ইন্ডাস্ট্রি দেয়না। তাই তাকে বিয়ের কনে সাজানো কিংবা পাড়ার নাটকে মেক আপ করতে হয়, তাও সে খুশি কারণ  জয়া (সোহিনী সরকার) তার মোনালিসা তার জীবনে আছে। যখন সে তার শিল্পীসত্তাকে প্রকাশ করতে মরিয়া কিন্তু সুযোগ নেই তখন তার জীবনে আবির্ভাব ঘটে আদি বোসের। আদি ভিঞ্চিদাকে তার জালে ফাঁসিয়ে  ভিঞ্চিদার মাধ্যমে প্রস্থেটিক মেক আপ করে খুন করতে থাকে। এরপর সিনেমায় কী হল তা জানতে হলে প্রেক্ষাগৃহে যেতে হবে।
       এই ছবির অভিনয় ছবির অন্যতম শক্তিশালী অংশ। রুদ্রনীল ঘোষ, ঋত্বিক চক্রবর্তী, সোহিনী  সরকার, অনির্বাণ ভট্টাচার্য, ঋদ্ধি সেন প্রত্যেকের বলশালী অভিনয় মুগ্ধ করে। ছবির গানগুলির মধ্যে ‘শান্ত হও’  গানের কথাগুলো হলের বাইরে বেরিয়ে আসার পরও মনে থাকে।
        এই ছবির কিছু দৃশ্য মনে গেঁথে যায়। যেমন ইন্টারভ্যালের আগের দৃশ্যটি। যেখানে আদি ও ভিঞ্চিদার মুখের একটা দিক দেখা যাচ্ছে আর আদির যুক্তির কাছে হার মানছে ভিঞ্চিদার বিবেক, এই দৃশ্যটি আসলে ভিঞ্চিদার মনের দন্দ্বের প্রতীক। এইরকম আরও ভালো দৃশ্য রয়েছে সিনেমায়।
       যাইহোক, এই সিনেমার একটা দূর্বলতা আছে বলে আমার ব্যক্তিগতভাবে মনে হয়। সেটা হল আদি বোসের চরিত্রটিকে আরও ভালোভাবে ফোটাতে ভিঞ্চিদার সাথে দেখা হওয়ার আগের কিছু ক্রাইম দেখানো উচিত ছিল। যাইহোক অন্যান্য দিক থেকে সিনেমাটি লেটার মার্কস পেয়েছে। আর সৃজিৎ মুখোপাধ্যায়ের আরও থ্রিলার সিনেমার জন্য অপেক্ষায় রইলাম।

রেটিং – ৮/১০


FavoriteLoading Add to library
    Up next
    ওই লোকটা – গার্গী লাহিড়ী... আবার এসেছে ওই লোকটা দু হাত মুষ্টিবদ্ধ , কাঁধে বিশাল এক ঝোলা মুঠোর মাঝে কি আছে বোঝা যায় না দুর্বোধ্য ভাষায় হেঁকে যায় গলি থেকে গলি লোকটা কি ফেরি ক...
    ।।ঠোঁটের ভালোবাসা।।... ফেসবুক থেকে বেডরুমের জার্নিটা তোর মনে আছে?কি যে বলিস? ভোলার জো আছে?তোর এক ডাকেতেই কিভাবে ছুটে গেছিলাম নর্থ টু সাউথ?দরজায় তোর ফার্স্ট অ্যাপিয়ারেন্সেই...
    সাড়ে তিনশ গ্রাম কবিতা... সাড়ে তিনশ গ্রাম কবিতা দিতে পারব,তোমায় আমি ছড়াও দেব,বদলে কি আমাকে দু' পেগ রাম দেবে?দুটো গদ্য বা গল্পের বিনিময়েহুয়িস্কি পাব? কিম্বা ব্রাণ্ডি?যা খেয়ে আমি...
    জঠর – পদ্মাবতী মন্ডল... কী গো! তোমার সকাল হল? বড় লোকের বেটি তিন পো বেলা কেটে গেল পেলাম না তো চা'টি । ঠাকুর দ্যেবতা ডর নেই মা এমন অলক্ষুণে , পাঁচ বছরেও ,জ্বলল নাকো বংশ ...
    সত্যি ডাকাতির গল্প – প্রদীপ চট্টোপাধ্যায়... একটা সত্যি ডাকাতির ঘটনা বলছি। তখন আমি মামারবাড়িতে থাকি, বেশ ছোট। মামারবাড়ি বাঘাটী নামে এক গ্রামে। গ্রামটা হুগলি জেলার ডানকুনি ছাড়িয়ে মশাট শিয়াখালার লা...
    বেদনার ভাষা – ফারিন ইয়াসমিন... জীবন মাঝে মাঝে স্বপ্নভঙ্গ ও ব্যর্থতার মধ্যেকার শূন্যতায় নিয়ে যায় এক বিস্ময়কর স্বাদ হৃদয়ে মেশাবে বলে। অপার শূন্যতায় মিলিয়ে যাওয়ার পরও তোমার স্মৃত...
    ওরা ভালবাসতে জানে না – কৌশিক প্রামাণিক... ওরা ভালবাসতে জানে না, শরীরটা যেন ভোগ্যপণ্য মেকি প্রেমের মোড়কে, সদ্যজাত শিশুর তাই স্থান হয় নির্জন সড়কে | ওরা ভালবাসতে জানে না, পশুদের ধারালো দন্তে ...
    আমার তুমি- মুক্তধারা মুখার্জী...   “কিগো, তাড়াতাড়ি এসো না। মশারিটা তাড়াতাড়ি টাঙিয়ে দিয়ে যাও না। আর কতক্ষণ বসে থাকবো। বসে বসে তো গাঁটের যন্ত্রণাটা বেড়ে গেল”। “তো আমি কি করবো? আম...
    মুক্তির গন্ধ – প্রদীপ চট্টোপাধ্যায়...  কত রকম না আশ্চর্যের ঘটনা ঘটে। কোনও কোনও সময় মনে হয়, এগুলো কি সত্যি নাকি নিছক মনের ভুল সব। কে জানে। কিন্তু ঘটনাটা অস্বীকারও করা যায় না। সময়টা বসন্তকাল...
    বিজ্ঞান ও ঈশ্বর - ইন্দ্রজিৎ ঘোষ   বিজ্ঞান শব্দের অর্থ বিশেষ জ্ঞান অর্থাৎ ধারাবাহিক পরীক্ষা,পর্যবেক্ষণ,গণনা ও সিদ্ধান্তের মাধ্যমে অর্জিত জ্ঞানই হলো বিজ্ঞান । ...
    Ankur Krishna Chowdhury

    Author: Ankur Krishna Chowdhury

    জীবনের ছাত্র

    Comments

    Please Login to comment